Saturday , July 20 2024

সূরা আল-মুজাদালাহ

সূরা আল-মুজাদালাহ

শ্রেণীঃ মাদানী সূরা
নামের অর্থঃ অনুযোগকারিণী

সূরার ক্রমঃ ৫৮
আয়াতের সংখ্যাঃ ২২
পারার ক্রমঃ ২৮
রুকুর সংখ্যাঃ ৩
সিজদাহ্‌র সংখ্যাঃ নেই

← পূর্ববর্তী সূরা সূরা আল-হাদীদ
পরবর্তী সূরা → সূরা আল-হাশর

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ
আরবি উচ্চারণ বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম বাংলা অনুবাদ পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি। قَدْ سَمِعَ اللَّهُ قَوْلَ الَّتِي تُجَادِلُكَ فِي زَوْجِهَا وَتَشْتَكِي إِلَى اللَّهِ وَاللَّهُ يَسْمَعُ تَحَاوُرَكُمَا إِنَّ اللَّهَ سَمِيعٌ بَصِيرٌ58.1 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১। ক্বদ্ সামি‘আল্লা-হু ক্বওলাল্লাতী তুজ্বা-দিলুকা ফী যাওজ্বিহা- অতাশ্তাকী য় ইলাল্লা-হি ‘অল্লা-হু ইয়াস্মা‘উ তাহা- য়ুরাকুমা-; ইন্নাল্লা-হা সামী‘উম্ বার্ছী বাংলা অনুবাদ ৫৮.১ আল্লাহ অবশ্যই সে রমনীর কথা শুনেছেন যে তার স্বামীর ব্যাপারে তোমার সাথে বাদানুবাদ করছিল আর আল্লাহর কাছে ফরিয়াদ করছিল। আল্লাহ তোমাদের কথোপকথন শোনেন। নিশ্চয় আল্লাহ সর্বশ্রোতা, সর্বদ্রষ্টা। الَّذِينَ يُظَاهِرُونَ مِنْكُمْ مِنْ نِسَائِهِمْ مَا هُنَّ أُمَّهَاتِهِمْ إِنْ أُمَّهَاتُهُمْ إِلَّا اللَّائِي وَلَدْنَهُمْ وَإِنَّهُمْ لَيَقُولُونَ مُنْكَرًا مِنَ الْقَوْلِ وَزُورًا وَإِنَّ اللَّهَ لَعَفُوٌّ غَفُورٌ58.2 আরবি উচ্চারণ ৫৮.২। আল্লাযীনা ইয়ুজোয়া-হিরূনা মিন্কুম্ মিন্ নিসা-য়িহিম্ মা-হুন্না উম্মাহা-তিহিম্; ইন্ উম্মাহা-তুহুম্ ইল্লা ল্লা-য়ী অলাদ্নাহুম্; অইন্নাহুম্ লাইয়াকুলূনা মুন্কারাম্ মিনাল্ ক্বওলি অযূর-; অইন্নাল্লা-হা লা ‘আফুওয়্যুন্ গর্ফূ। বাংলা অনুবাদ ৫৮.২ তোমাদের মধ্যে যারা তাদের স্ত্রীদের সাথে যিহার করে, তাদের স্ত্রীগণ তাদের মাতা নয়। তাদের মাতা তো কেবল তারাই যারা তাদেরকে জন্ম দিয়েছে। আর তারা অবশ্যই অসঙ্গত ও অসত্য কথা বলে। আর নিশ্চয় আল্লাহ অধিক পাপ মোচনকারী, বড়ই ক্ষমাশীল। وَالَّذِينَ يُظَاهِرُونَ مِنْ نِسَائِهِمْ ثُمَّ يَعُودُونَ لِمَا قَالُوا فَتَحْرِيرُ رَقَبَةٍ مِنْ قَبْلِ أَنْ يَتَمَاسَّا ذَلِكُمْ تُوعَظُونَ بِهِ وَاللَّهُ بِمَا تَعْمَلُونَ خَبِيرٌ58.3 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৩। অল্লাযীনা ইয়ুজোয়া-হিরূনা মিন্ নিসা-য়িহিম্ ছুম্মা ইয়া‘ঊদূনা লিমা- ক্ব-লূ ফাতাহ্রীরু রক্ববাতিম্ মিন্ ক্বব্লি আইঁ ইয়াতামা-স্ সা-; যা-লিকুম্ তূ‘আজূনা বিহ্; অল্লা-হু বিমা-তা’মালূনা খার্বী। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৩ আর যারা তাদের স্ত্রীদের সাথে ‘যিহার’ করে অতঃপর তারা যা বলেছে তা থেকে ফিরে আসে, তবে একে অপরকে স্পর্শ করার পূর্বে একটি দাস মুক্ত করবে। এর মাধ্যমে তোমাদেরকে উপদেশ দেয়া হচ্ছে। আর তোমরা যা কর, সে সম্পর্কে আল্লাহ সম্যক অবহিত। فَمَنْ لَمْ يَجِدْ فَصِيَامُ شَهْرَيْنِ مُتَتَابِعَيْنِ مِنْ قَبْلِ أَنْ يَتَمَاسَّا فَمَنْ لَمْ يَسْتَطِعْ فَإِطْعَامُ سِتِّينَ مِسْكِينًا ذَلِكَ لِتُؤْمِنُوا بِاللَّهِ وَرَسُولِهِ وَتِلْكَ حُدُودُ اللَّهِ وَلِلْكَافِرِينَ عَذَابٌ أَلِيمٌ58.4 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৪। ফামাল্লাম্ ইয়াজ্বিদ্ ফাছিয়া-মু শাহ্রাইনি মুতাতা- বি‘আইনি মিন্ ক্বব্লি আইঁ ইয়াতামা-স্ সা-ফামাল্লাম্ ইয়াস্তাত্বি’ ফাইত‘আ-মু সিত্তীনা মিস্কীনা-; যা-লিকা লিতুমিনূ বিল্লা-হি অরাসূলিহ্; অতিল্কা হুদূ’দুল্লা-হি অলিল্কা-ফিরীনা ‘আযা-বুন্ আলীম্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৪ কিন্তু যে তা পাবে না, সে লাগাতার দু মাস সিয়াম পালন করবে, একে অপরকে স্পর্শ করার পূর্বে। আর যে (এরূপ করার) সামর্থ্য রাখে না সে ষাটজন মিসকীনকে খাবার খাওয়াবে। এ বিধান এ জন্য যে, তোমরা যাতে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের প্রতি ঈমান আন। আর এগুলো আল্লাহর (নির্ধারিত) সীমা এবং কাফিরদের জন্য রয়েছে যণ্ত্রনাদায়ক আযাব। إِنَّ الَّذِينَ يُحَادُّونَ اللَّهَ وَرَسُولَهُ كُبِتُوا كَمَا كُبِتَ الَّذِينَ مِنْ قَبْلِهِمْ وَقَدْ أَنْزَلْنَا آيَاتٍ بَيِّنَاتٍ وَلِلْكَافِرِينَ عَذَابٌ مُهِينٌ58.5 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৫। ইন্নাল্লাযীনা ইয়ুহা-দ্দূ নাল্লা-হা অরসূলাহূ কুবিতূ কামা-কুবিতাল্ লাযীনা মিন্ ক্বব্লিহিম্ অক্বদ্ আন্যাল্না য় আ-ইয়া-তিম্ বাইয়্যিনা-ত্; অলিল্কা-ফিরীনা ‘আযা-বুম্ মুহীন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৫ যারা আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের বিরোধিতা করে তাদেরকে অপদস্ত করা হবে যেভাবে অপদস্ত করা হয়েছিল তাদের পূর্ববর্তীদেরকে। আর আমি নাযিল করেছি সুস্পষ্ট প্রমাণাদি। আর কাফিরদেও জন্য রয়েছে অপমানজনক আযাব। يَوْمَ يَبْعَثُهُمُ اللَّهُ جَمِيعًا فَيُنَبِّئُهُمْ بِمَا عَمِلُوا أَحْصَاهُ اللَّهُ وَنَسُوهُ وَاللَّهُ عَلَى كُلِّ شَيْءٍ شَهِيدٌ58.6 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৬। ইয়াওমা ইয়াব্‘আ ছুহুমু ল্লা-হু জ্বামী ‘আন্ ফাইয়ুনাব্বিয়ুহুম্ বিমা-‘আমিলূ; আহ্ছোয়া-হুল্লা-হু অনাসূহ্; অল্লা-হু ‘আলা-কুল্লি শাইয়িন্ শাহীদ্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৬ যে দিন আল্লাহ তাদের সকলকে পুনরুজ্জীবিত করে উঠাবেন অতঃপর তারা যে আমল করেছিল তা তাদেরকে জানিয়ে দেবেন। আল্লাহ তা হিসাব করে রেখেছেন যদিও তারা তা ভুলে গেছে। আর আল্লাহ প্রত্যেক বিষয়ে প্রত্যক্ষদর্শী। أَلَمْ تَرَ أَنَّ اللَّهَ يَعْلَمُ مَا فِي السَّمَاوَاتِ وَمَا فِي الْأَرْضِ مَا يَكُونُ مِنْ نَجْوَى ثَلَاثَةٍ إِلَّا هُوَ رَابِعُهُمْ وَلَا خَمْسَةٍ إِلَّا هُوَ سَادِسُهُمْ وَلَا أَدْنَى مِنْ ذَلِكَ وَلَا أَكْثَرَ إِلَّا هُوَ مَعَهُمْ أَيْنَ مَا كَانُوا ثُمَّ يُنَبِّئُهُمْ بِمَا عَمِلُوا يَوْمَ الْقِيَامَةِ إِنَّ اللَّهَ بِكُلِّ شَيْءٍ عَلِيمٌ58.7 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৭। আলাম্ তারা আন্নাল্লা-হা ইয়া’লামু মা-ফিস্ সামা-ওয়া-তি অমা-ফিল্ র্আদ্ব্; মা- ইয়াকূনু মিন্ নাজওয়া-ছালা-ছাতিন্ ইল্লা-হুওয়া রা-বি‘উহুম্ অলা-খম্সাতিন্ ইল্লা-হুওয়া সা-দিসুহুম্ অলা য় আদ্না-মিন্ যা-লিকা অলা য় আক্ছার ইল্লা-হুওয়া মা‘আহুম্ আইনা মা-কা-নূ ছুম্মা ইয়ুনাব্বিয়ুহুম্ বিমা- ‘আমিলূ ইয়াওমাল্ ক্বিয়া-মাহ্; ইন্নাল্লা-হা বিকুল্লি শাইয়িন্ ‘আলীম্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৭ তুমি কি লক্ষ্য করনি যে, আসমানসমূহ ও যমীনে যা কিছু আছে নিশ্চয় আল্লাহ তা জানেন? তিন জনের কোন গোপন পরামর্শ হয় না যাতে চতুর্থ জন হিসেবে আল্লাহ থাকেন না, আর পাঁচ জনেরও হয় না, যাতে ষষ্ঠজন হিসেবে তিনি থাকেন না। এর চেয়ে কম হোক কিংবা বেশি হোক, তিনি তো তাদের সঙ্গেই আছেন, তারা যেখানেই থাকুক না কেন। তারপর কিয়ামতের দিন তিনি তাদেরকে তাদের কৃতকর্ম সম্পর্কে জানিয়ে দেবেন। নিশ্চয় আল্লাহ সব বিষয়ে সম্যক অবগত। أَلَمْ تَرَ إِلَى الَّذِينَ نُهُوا عَنِ النَّجْوَى ثُمَّ يَعُودُونَ لِمَا نُهُوا عَنْهُ وَيَتَنَاجَوْنَ بِالْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ وَمَعْصِيَةِ الرَّسُولِ وَإِذَا جَاءُوكَ وَإِذَا جَاءُوكَ حَيَّوْكَ بِمَا لَمْ يُحَيِّكَ بِهِ اللَّهُ وَيَقُولُونَ فِي أَنْفُسِهِمْ لَوْلَا يُعَذِّبُنَا اللَّهُ بِمَا نَقُولُ حَسْبُهُمْ جَهَنَّمُ يَصْلَوْنَهَا فَبِئْسَ الْمَصِيرُ58.8 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৮। আলাম্ তারা ইলাল্ লাযীনা নুহূ ‘আনিন্ নাজ্ব ওয়া ছুম্মা ইয়া‘ঊদূনা লিমা-নুহূ ‘আন্হু অইয়াতানা-জ্বাওনা বিল্ইছ্মি অল্‘ঊদ্ওয়া-নি অমা’ছিয়ার্তি রসূলি অইযা- জ্বা-য়ূকা হাইইয়াওকা বিমা-লাম্ ইয়ুহাইয়্যিকা বিহিল্লা-হু অইয়াকুলূনা ফী য় আন্ফুসিহিম্ লাওলা ইয়ু‘আয্যিবুনাল্লা-হু বিমা- নাকুল্; হাস্বুহুম্ জ্বাহান্নামু ইয়াছ্লাওনাহা-ফাবি”সাল্ মার্ছী। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৮ তুমি কি তাদের প্রতি লক্ষ্য করনি, যাদেরকে গোপন পরাপশর্ করতে নিষেধ করা হয়েছিল? তারপরও তারা তারই পুনরাবৃত্তি করল যা করতে তাদেরকে নিষেধ করা হয়েছিল। আর তারা পাপাচার, সীমালঙ্ঘন ও রাসূলের বিরুদ্ধাচরণের জন্য গোপন পরাপশর্ করে। আর তারা যখন তোমার কাছে আসে তখন তারা তোমাকে এমন (কথার দ্বারা) অভিবাদন জানায় যেভাবে আল্লাহ তোমাকে অভিবাদন করেননি। আর তারা মনে মনে বলে, ‘আমরা যা বলি তার জন্য আল্লাহ আমাদেরকে শাস্তি দেন না কেন? তাদের জন্য জাহান্নামই যথেষ্ট। তারা তাতে প্রবেশ করবে। আর তা কতইনা নিকৃষ্ট গন্তব্যস্থল! يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا إِذَا تَنَاجَيْتُمْ فَلَا تَتَنَاجَوْا بِالْإِثْمِ وَالْعُدْوَانِ وَمَعْصِيَةِ الرَّسُولِ وَتَنَاجَوْا بِالْبِرِّ وَالتَّقْوَى وَاتَّقُوا اللَّهَ الَّذِي إِلَيْهِ تُحْشَرُونَ58.9 আরবি উচ্চারণ ৫৮.৯। ইয়া য় আইয়ুহাল লাযীনা আ-মানূ য় ইযা-তানা জ্বাইতুম্ ফালা-তাতানা-জ্বাও বিল্ইছ্মি অল্‘উদ্ওয়া-নি অমা’ছিয়ার্তি রসূলি অতানা-জ্বাও বির্ল্বিরি অত্তাক্ব ওয়া-; অত্তাক্ব ল্লা-হাল্লাযী য় ইলাইহি তুহ্শারূন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.৯ হে মুমিনগণ, তোমরা যখন গোপনে পরামর্শ করবে তখন তোমরা যেন গুনাহ, সীমালঙ্ঘন ও রাসূলের বিরুদ্ধাচরণের ব্যাপারে গোপন পরামর্শ না কর। আর তোমরা সৎকর্ম ও তাকওয়ার বিষয়ে গোপন পরামর্শ কর। তোমরা আল্লাহকে ভয় কর, যাঁর কাছে তোমাদেরকে সমবেত করা হবে। إِنَّمَا النَّجْوَى مِنَ الشَّيْطَانِ لِيَحْزُنَ الَّذِينَ آمَنُوا وَلَيْسَ بِضَارِّهِمْ شَيْئًا إِلَّا بِإِذْنِ اللَّهِ وَعَلَى اللَّهِ فَلْيَتَوَكَّلِ الْمُؤْمِنُونَ 58.10 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১০। ইন্নামান্ নাজওয়া-মিনাশ্ শাইত্বোয়া-নি লিইয়াহ্যুনাল্ লাযীনা আ-মানূ অলাইসা বিদ্বোয়া -র্ রিহিম্ শাইয়ান্ ইল্লা-বিইয্নিল্লা-হ্ অ‘আলাল্লা-হি ফাল্ইয়াতাওয়াক্কালিল্ মু’মিনূন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১০ গোপন পরামর্শ তো হল মুমিনরা যাতে দুখ পায় সে উদ্দেশ্যে কৃত শয়তানের কুমন্ত্রণা মাত্র। আর আল্লাহর অনুমতি ছাড়া সে তাদের কিছুই ক্ষতি করতে পারে না। অতএব আল্লাহরই ওপর মুমিনরা যেন তাওয়াক্কুল করে। يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا إِذَا قِيلَ لَكُمْ تَفَسَّحُوا فِي الْمَجَالِسِ فَافْسَحُوا يَفْسَحِ اللَّهُ لَكُمْ وَإِذَا قِيلَ انْشُزُوا فَانْشُزُوا يَرْفَعِ اللَّهُ الَّذِينَ آمَنُوا مِنْكُمْ وَالَّذِينَ أُوتُوا الْعِلْمَ دَرَجَاتٍ وَاللَّهُ بِمَا تَعْمَلُونَ خَبِيرٌ58.11 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১১। ইয়া য় আইয়্যুহা ল্লাযীনা আ-মানূ য় ইযা-ক্বীলা লাকুম্ তাফাস্সাহূ ফিল্ মাজ্বা-লিসি ফাফ্সাহূ ইয়াফ্সাহিল্লা-হু লাকুম্ অইযা-ক্বীলান্ শুযূ ফান্শুযূ ইর্য়াফাই’ ল্লা-হুল্ লাযীনা আ-মানূ মিন্কুম্, অল্লাযীনা ঊতুল্ ‘ইল্মা দারাজ্বা-ত্; অল্লা-হু বিমা-তা’মালূনা খর্বী। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১১ হে মুমিনগণ, তোমাদেরকে যখন বলা হয়, ‘মজলিসে স্থান করে দাও’, তখন তোমরা স্থান করে দেবে। আল্লাহ তোমাদের জন্য স্থান করে দেবেন। আর যখন তোমাদেরকে বলা হয়, ‘তোমরা উঠে যাও’, তখন তোমরা উঠে যাবে। তোমাদের মধ্যে যারা ঈমান এনেছে এবং যাদেরকে জ্ঞান দান করা হয়েছে আল্লাহ তাদেরকে মর্যাদায় সমুন্নত করবেন। আর তোমরা যা কর আল্লাহ সে সম্পর্কে সম্যক অবহিত। يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا إِذَا نَاجَيْتُمُ الرَّسُولَ فَقَدِّمُوا بَيْنَ يَدَيْ نَجْوَاكُمْ صَدَقَةً ذَلِكَ خَيْرٌ لَكُمْ وَأَطْهَرُ فَإِنْ لَمْ تَجِدُوا فَإِنَّ اللَّهَ غَفُورٌ رَحِيمٌ58.12 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১২। ইয়া য় আইয়্যুহাল্ লাযীনা আ-মানূ য় ইযা -না- জ্বাইতুর্মু রাসূলা ফাক্বাদ্দিমূ বাইনা ইয়াদাই নাজওয়া-কুম্ ছদাক্বাহ্; যা-লিকা খইরুল্লাকুম্ অ আত্বর্ হা; ফাইল্লাম্ তাজ্বিদূ ফাইন্নাল্লা-হা গফূর্রু রহীম্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১২ হে মুমিনগণ, তোমরা যখন রাসূলের সাথে একান্তে কথা বলতে চাও, তখন তোমাদের এরূপ কথার পূর্বে কিছু সদাকা পেশ কর। এটি তোমাদের জন্য শ্রেয়তর ও পবিত্রতর; কিন্তু যদি তোমরা সক্ষম না হও তবে আল্লাহ পরম ক্ষমাশীল, অতিশয় দয়ালু। أَأَشْفَقْتُمْ أَنْ تُقَدِّمُوا بَيْنَ يَدَيْ نَجْوَاكُمْ صَدَقَاتٍ فَإِذْ لَمْ تَفْعَلُوا وَتَابَ اللَّهُ عَلَيْكُمْ فَأَقِيمُوا الصَّلَاةَ وَآتُوا الزَّكَاةَ وَأَطِيعُوا اللَّهَ وَرَسُولَهُ وَاللَّهُ خَبِيرٌ بِمَا تَعْمَلُونَ58.13 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৩। আ আশ্ফাক্ব তুম্ আন্ তুক্বাদ্দিমূ বাইনা ইয়াদাই নাজওয়া- কুম্ ছদাক্ব-ত্; ফাইয্ লাম্ তাফ্‘আলূ অতা-বাল্লা-হু ‘আলাইকুম্ ফাআক্বীমুছ্ ছলা-তা অআ-তুয্ যাকা-তা অআত্বী ‘উল্লা-হা অ রাসূলাহ্; অল্লা-হু খবীরুম্ বিমা-তা’মালূন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৩ তোমরা কি ভয় পেয়ে গেলে যে, একান্ত পরামর্শের পূর্বে সদাকা পেশ করবে? হ্যাঁ, যখন তোমরা তা করতে পারলে না, আর আল্লাহও তোমাদের ক্ষমা করে দিলেন, তখন তোমরা সালাত কায়েম কর, যাকাত দাও এবং আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের আনুগত্য কর। তোমরা যা কর, আল্লাহ সে সম্পর্কে সম্যক অবগত। أَلَمْ تَرَ إِلَى الَّذِينَ تَوَلَّوْا قَوْمًا غَضِبَ اللَّهُ عَلَيْهِمْ مَا هُمْ مِنْكُمْ وَلَا مِنْهُمْ وَيَحْلِفُونَ عَلَى الْكَذِبِ وَهُمْ يَعْلَمُونَ58.14 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৪। আলাম্ তারা ইলাল্ লাযীনা তাওয়াল্লাও ক্বওমান্ গদ্বিবাল্ লা-হু ‘আলাইহিম্; মা-হুম্ মিন্কুম্ অলা-মিন্হুম্ অইয়াহ্লিফূনা ‘আলাল্ কাযিবি অহুম্ ইয়া’লামূন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৪ তুমি কি তাদের লক্ষ্য করনি, যারা এমন এক কওমের সাথে বন্ধুত করে যাদের উপর আল্লাহর গযব নিপতিত হয়েছে? তারা তোমাদের দলভুক্ত নয় এবং তোমরাও তাদের দলভুক্ত নও। আর তারা জেনে শুনেই মিথ্যার উপর কসম করে। أَعَدَّ اللَّهُ لَهُمْ عَذَابًا شَدِيدًا إِنَّهُمْ سَاءَ مَا كَانُوا يَعْمَلُونَ58.15 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৫। আ‘আদ্দা ল্লা-হু লাহুম্ ‘আযা-বান্ শাদীদা-; ইন্নাহুম্ সা-য়া মা-কা-নূ ইয়া’মালূন। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৫ আল্লাহ তাদের জন্য কঠোর আযাব প্রস্তুত করে রেখেছেন। নিশ্চয় তারা যা করত তা কতইনা মন্দ! اتَّخَذُوا أَيْمَانَهُمْ جُنَّةً فَصَدُّوا عَنْ سَبِيلِ اللَّهِ فَلَهُمْ عَذَابٌ مُهِينٌ58.16 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৬। ইত্তাখাযূ য় আইমা-নাহুম্ জুন্নাতান্ ফাছোয়াদ্দু‘আন্ সাবীলিল্লা -হি ফালাহুম্ ‘আযা-বুম্ মুহীন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৬ তারা তাদের কসমগুলোকে ঢাল হিসেবে নিয়েছে। অতঃপর তারা আল্লাহর পথে বাধা প্রদান করেছে। ফলে তাদের জন্য রয়েছে লাঞ্ছনাদায়ক আযাব। لَنْ تُغْنِيَ عَنْهُمْ أَمْوَالُهُمْ وَلَا أَوْلَادُهُمْ مِنَ اللَّهِ شَيْئًا أُولَئِكَ أَصْحَابُ النَّارِ هُمْ فِيهَا خَالِدُونَ58.17 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৭। লান্ তুগ্নিয়া ‘আন্হুম্ আম্ওয়া-লুহুম্ অলা য় আওলাদুহুম্ মিনাল্লা-হি শাইয়া-; উলা-য়িকা আছ্হা-বুন্ নার্-; হুম্ ফীহা-খ-লিদূন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৭ আল্লাহর বিপরীতে তাদের ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি তাদের আদৌ কোন কাজে আসবে না। এরাই জাহান্নামের অধিবাসী। তারা সেখানে স্থায়ী হবে। يَوْمَ يَبْعَثُهُمُ اللَّهُ جَمِيعًا فَيَحْلِفُونَ لَهُ كَمَا يَحْلِفُونَ لَكُمْ وَيَحْسَبُونَ أَنَّهُمْ عَلَى شَيْءٍ أَلَا إِنَّهُمْ هُمُ الْكَاذِبُونَ58.18 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৮। ইয়াওমা ইয়াব্‘আছুহুমু ল্লা-হু জ্বামী‘আন্ ফাইয়াহ্লিফূনা লাহূ কামা-ইয়াহ্লিফূনা লাকুম্ অইয়াহসাবূনা আন্নাহুম্ ‘আলা শাইয়িন্ আলা য় ইন্নাহুম্ হুমুল্ কা-যিবূন্ বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৮ সেদিন আল্লাহ তাদের সকলকে পুনরুত্থিত করবেন, তখন তারা আল্লাহর নিকট এমন কসম করবে যেমন কসম তোমাদের নিকট করে থাকে এবং তারা মনে করে যে, তারা কোন কিছুর উপর আছে। জেনে রাখ, নিশ্চয় এরা মিথ্যাবাদী। اسْتَحْوَذَ عَلَيْهِمُ الشَّيْطَانُ فَأَنْسَاهُمْ ذِكْرَ اللَّهِ أُولَئِكَ حِزْبُ الشَّيْطَانِ أَلَا إِنَّ حِزْبَ الشَّيْطَانِ هُمُ الْخَاسِرُونَ58.19 আরবি উচ্চারণ ৫৮.১৯। ইস্তাহ্ওয়াযা ‘আলাইহিমুশ্ শাইত্বোয়া-নু ফাআন্সা-হুম্ যিক্রল্লা-হ্; উলা-য়িকা হিয্বুশ্ শাইত্বোয়া-ন্; ‘আলা য় ইন্না হিয্বাশ্ শাইত্বোয়া-নি হুমুল্ খা-সিরূন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.১৯ শয়তান এদের ওপর চেপে বসেছে এবং তাদেরকে আল্লাহর যিকির ভুলিয়ে দিয়েছে। এরাই শয়তানের দল। জেনে রাখ, নিশ্চয় শয়তানের দল ক্ষতিগ্রস্ত। إِنَّ الَّذِينَ يُحَادُّونَ اللَّهَ وَرَسُولَهُ أُولَئِكَ فِي الْأَذَلِّينَ58.20 আরবি উচ্চারণ ৫৮.২০। ইন্নাল্লাযীনা ইয়ুহা-দ্দূনাল্লা-হা অরসূলাহূ য় উলা-য়িকা ফিল্ আযাল্লীন্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.২০ নিশ্চয় যারা আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের বিরোধিতা করে তারা চরম লাঞ্ছিতদের অন্তর্ভুক্ত। كَتَبَ اللَّهُ لَأَغْلِبَنَّ أَنَا وَرُسُلِي إِنَّ اللَّهَ قَوِيٌّ عَزِيزٌ 58.21 আরবি উচ্চারণ ৫৮.২১। কাতাবাল্লা-হু লাআগ্লিবান্না আনা অরুসুলী; ইন্নাল্লা-হা ক্বাও ওয়িইয়ুন্ ‘আযীয্। বাংলা অনুবাদ ৫৮.২১ আল্লাহ লিখে দিয়েছেন যে, ‘আমি ও আমার রাসূলগণ অবশ্যই বিজয়ী হব।’ নিশ্চয় আল্লাহ মহা শক্তিমান, মহা পরাক্রমশালী। لَا تَجِدُ قَوْمًا يُؤْمِنُونَ بِاللَّهِ وَالْيَوْمِ الْآخِرِ يُوَادُّونَ مَنْ حَادَّ اللَّهَ وَرَسُولَهُ وَلَوْ كَانُوا آبَاءَهُمْ أَوْ أَبْنَاءَهُمْ أَوْ إِخْوَانَهُمْ أَوْ عَشِيرَتَهُمْ أُولَئِكَ كَتَبَ فِي قُلُوبِهِمُ الْإِيمَانَ وَأَيَّدَهُمْ بِرُوحٍ مِنْهُ وَيُدْخِلُهُمْ جَنَّاتٍ تَجْرِي مِنْ تَحْتِهَا الْأَنْهَارُ خَالِدِينَ فِيهَا رَضِيَ اللَّهُ عَنْهُمْ وَرَضُوا عَنْهُ أُولَئِكَ حِزْبُ اللَّهِ أَلَا إِنَّ حِزْبَ اللَّهِ هُمُ الْمُفْلِحُونَ 58.22 আরবি উচ্চারণ ৫৮.২২। লা-তাজ্বিদু ক্বওমাইঁ ইয়ু”মিনূনা বিল্লা-হি অল্ইয়াওমিল্ আ-খিরি ইয়ুওয়া-দুনা মান্ হা-দ্দাল্লা-হা অরাসূলাহূ অলাও কা-নূ য় আ-বা-য়াহুম্ আও আব্না-য়াহুম্ আও ইখ্ওয়া-নাহুম্ আও আশীরতাহুম্; উলা-য়িকা কাতাবা ফী কুলূ বিহিমুল্ ঈমা-না অ আইয়্যাদাহুম্ বিরূহিম্ মিন্হু অ ইয়ুদ্খিলুহুম্ জ্বান্না-তিন্ তাজরী মিন্ তাহ্তিহাল্ আন্হা-রু খ-লিদীনা ফীহা-; রদ্বিয়াল্লা-হু আ’ন্হুম্ অ রাদ্বূ ‘আন্হু উলা-য়িকা হিয্বুল্লা-হ্; আলা য় ইন্না হিয্বাল্লা-হি হুমুল্ মুফ্লিহূন্ বাংলা অনুবাদ ৫৮.২২ তুমি পাবে না এমন জাতিকে যারা আল্লাহ ও পরকালের প্রতি ঈমান আনে, বন্ধুত ¡ করতে তার সাথে যে আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের বিরোধীতা করে, যদিও তারা তাদের পিতা, অথবা পুত্র, অথবা ভাই, অথবা জ্ঞাতি-গোষ্ঠী হয়। এরাই, যাদের অন্তরে আল্লাহ ঈমান লিখে দিয়েছেন এবং তাঁর পক্ষ থেকে রূহ দ্বারা তাদের শক্তিশালী করেছেন। তিনি তাদের প্রবেশ করাবেন এমন জান্নাতসমূহে যার নিচে দিয়ে ঝর্ণাধারাসমূহ প্রবাহিত হয়। সেখানে তারা স্থায়ী হবে। আল্লাহ তাদের প্রতি সন্তুষ্ট হয়েছেন এবং তারাও আল্লাহর প্রতি সন্তুষ্ট হয়েছে। এরাই আল্লাহর দল। জেনে রাখ, নিশ্চয় আল্লাহর দলই সফলকাম।

About Abdul Latif Sheikh

Check Also

idf image

সুরা আল ইমরান আয়াত ১০২-১০৫ এর তাফসির

یٰۤاَیُّهَا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوا اتَّقُوا اللّٰهَ حَقَّ تُقٰتِهٖ وَ لَا تَمُوۡتُنَّ اِلَّا وَ اَنۡتُمۡ مُّسۡلِمُوۡنَ  وَ …

সুরা ইখলাস এর ফযিলত

সুরা আন আনফাল

সুরা আন আনফাল নামের অর্থঃ যুদ্ধ লব্ধ সম্পদ শ্রেনীঃ মাদানী সুরা ক্রমঃ ৮ আয়াত সংখ্যাঃ …

সুরা ইখলাস এর ফযিলত

সূরা আত-তাওবাহ্‌

সূরা আত-তাওবাহ্‌ শ্রেণীঃ মাদানীনামের অর্থঃ অনুশোচনাঅন্য নামঃ আল-বারাহ্ (শাস্তি থেকে অব্যাহতি) সূরার ক্রমঃ ৯আয়াতের সংখ্যাঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *