Monday , February 26 2024

সূরা আল-ক্বামার

সূরা আল-ক্বামার

শ্রেণীঃ মাক্কী সূরা
নামের অর্থঃ চন্দ্র

সূরার ক্রমঃ ৫৪
আয়াতের সংখ্যাঃ ৫৫
পারার ক্রমঃ ২৭
রুকুর সংখ্যাঃ ৩
সিজদাহ্‌র সংখ্যাঃ নেই
শব্দের সংখ্যাঃ ৩৪২
অক্ষরের সংখ্যাঃ ১৪৬৯

← পূর্ববর্তী সূরা সূরা আন-নাজম
পরবর্তী সূরা → সূরা আর-রাহমান

নামকরণঃ
এই সূরাটির প্রথম আয়াতের وَانْشَقَّ الْقَمَرُ বাক্যাংশের الْقَمَرُ অংশ থেকে এই সূরার নামটি গৃহীত হয়েছে; অর্থাৎ, যে সূরার মধ্যে القمر (‘ক্বামার‌’) শব্দটি আছে এটি সেই সূরা।

নাজিল হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতঃ

মদীনায় হিযরাতের ৫ বৎসর পূর্বে মক্কার কাফির ও মুশরিকদের একদল নেতা একবার মুহাম্মাদ’র কাছে আসে। তাদের মধ্যে আবু জেহেল, ওয়ালিদ বিন মুগিরাহ, আস ইবনে ওয়ায়েল, আস ইবনে হিশাম, আসওয়াদ ইবনে আবদে ইয়াগুস, আসওয়াদ ইবনে মুত্তালিব, যাম‘আহ ইবনুল আসওয়াদ, নযর ইবনে হারেস ইত্যাদি ছিল। ঐ দিন রাতের আকাশে পূর্ণ চাঁদ দেখা যাচিছল। তারা বললো, ‘আপনার নবুওতের দাবী যদি সত্য হয়ে থাকে তাহলে এই চাঁদকে দ্বিখণ্ডিত হতে বলুন’। মুহাম্মাদ বললেন, ‘এ কাজ করলে কি তোমরা ঈমান আনবে?’ তারা বললো, ‘হ্যা।” অতঃপর মুহাম্মদ আল্লাহর কাছে এ বিষয়ে প্রার্থনা করলেন। তার প্রার্থনা কবুল হলো। অতঃপর চাঁদ স্পষ্টভাবে দ্বিখণ্ডিত হয়ে গেল এবং দুই খণ্ডের মাঝখানে হেরা পর্বত দৃশ্যমান হলো। দুই খণ্ডের এক খণ্ড আবী কুবাইস পাহাড় বরাবর, অপরটি কাইকা’আন বরাবর দৃশ্যমান হলো। ইবনে কাসীর সহ সংখ্যাগরিষ্ঠ প্রাথমিককালের ইসলামী ইতিহাস রচয়িতাগণ এ ঘটনাকে নির্ভুল বলে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন।[২][৩][৪] এ সময় মুহাম্মাদ বলছিলেন, ‘সাক্ষী থাক ও দেখ’। কাফির ও মুশরিকরা এই অসাধারণ দৃশ্য দেখে বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গেল। কিন্তু তারা ঈমান না এনে বললো, ‘মনে হয়, আপনি আমাদেরকে যাদু করেছেন’। এ ঘটনাকে বলা হয় ‘শাক্কুল ক্বামার (আরবি: انشقاق القمر‎‎)) যার পরিপ্রেক্ষিতে সূরা কামার (চন্দ্র) অবতীর্ণ হয়। এর প্রথম দুই আয়াত হলো: 54:1-2

اقْتَرَبَتِ السَّاعَةُ وَانشَقَّ الْقَمَرُ وَإِن يَرَوْا آيَةً يُعْرِضُوا وَيَقُولُوا سِحْرٌ مُّسْتَمِرٌّ

এর অর্থ হলো, “কেয়ামত সমাসন্ন, চন্দ্র বিদীর্ণ হয়েছে। তারা যদি কোনো নিদর্শন দেখে তবে মুখ ফিরিয়ে নেয় এবং বলে এটা তো চিরাচরিত জাদু’’।

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

আরবি উচ্চারণ
বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

বাংলা অনুবাদ
পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।

اقْتَرَبَتِ السَّاعَةُ وَانْشَقَّ الْقَمَرُ54.1

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১। ইকতারবাতিস্ সা- ‘আতু অন্শাকক্বল্ ক্বর্মা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১ কিয়ামত নিকটবতীর্ হয়েছে এবং চাঁদ বিদীণর্ হয়েছে।

وَإِنْ يَرَوْا آيَةً يُعْرِضُوا وَيَقُولُوا سِحْرٌ مُسْتَمِرٌّ54.2

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২। অ ইঁ-ইয়ারও আ-ইয়াতাই ইয়ু’রিদু অইয়াকুলূ সিহ্রুম্ মুসতার্মি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২ আর তারা কোন নিদর্শন দেখলে মখু ফিরিয়ে নেয় এবং বলে, ‘চলমান যাদু ।

وَكَذَّبُوا وَاتَّبَعُوا أَهْوَاءَهُمْ وَكُلُّ أَمْرٍ مُسْتَقِرٌّ54.3

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩। অকায্যাবূ অত্তাবাঊ’ য় আহ্ওয়া-য়াহুম্ অকুল্লু আম্রিম্ মুস্তার্ক্বি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩ আর তারা অস্বীকার করে এবং নিজ নিজ প্রবৃত্তির অনুসরণ করে। অথচ প্রতিটি বিষয় (শেষ সীমায়) স্থির হবে।

وَلَقَدْ جَاءَهُمْ مِنَ الْأَنْبَاءِ مَا فِيهِ مُزْدَجَرٌ54.4

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪। অলাক্বদ্ জ্বা-য়াহুম্ মিনাল্ আম্বা-য়ি মা-ফীহি মুয্দার্জ্বা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪ আর তাদের কাছে তো সংবাদসমূহ এসেছে, যাতে রয়েছে উপদেশবাণী,

حِكْمَةٌ بَالِغَةٌ فَمَا تُغْنِ النُّذُرُ54.5

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৫। হিক্মাতুম্ বা-লিগাতুন্ ফামা-তুগ্নিন্ নুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫ পরিপণূর্ হিকমাত। তবে সতর্কবাণী তাদের কোন উপকারে আসেনি।

فَتَوَلَّ عَنْهُمْ يَوْمَ يَدْعُو الدَّاعِي إِلَى شَيْءٍ نُكُرٍ54.6

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৬। ফাতাওয়াল্লা ‘আন্হুম্ ইয়াওমা ইয়াদ্‘উদ্ দা-‘ই ইলা-শাইয়িন্ নুর্কু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৬ অতএব তুমি তাদের থেকে মখু ফিরিয়ে নাও, সেদিন আহ্বানকারী আহ্বান করবে এক বিভীষিকাময় বিষয়ের দিকে,

خُشَّعًا أَبْصَارُهُمْ يَخْرُجُونَ مِنَ الْأَجْدَاثِ كَأَنَّهُمْ جَرَادٌ مُنْتَشِرٌ 54.7

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৭। খুশ্শা‘আন্ আব্ছোয়া- রুহুম্ ইয়াখ্রুজুনা মিনাল্ আজ্ব ্দা-ছি কাআন্নাহুম্ জ্বার-দুম্ মুন্তাশিরু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৭ তারা তাদের দৃষ্টি অবনত অবস্থায় কবর থেকে বের হয়ে আসবে। মনে হবে যেন তারা বিক্ষিপ্ত পঙ্গপাল।

مُهْطِعِينَ إِلَى الدَّاعِي يَقُولُ الْكَافِرُونَ هَذَا يَوْمٌ عَسِرٌ54.8

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৮। মুহ্ত্বিঈ’না ইলাদ্ দা-‘ই; ইয়াকুলুল্ কা-ফিরূনা হা-যা- ইয়াওমুন্ ‘আর্সি;

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৮ তারা আহ্বানকারীর দিকে ভীত-সন্ত্রস্ত অবস্থায় ছুটে আসবে। কাফিররা বলবে, ‘এটি বড়ই কঠিন দিন’।

كَذَّبَتْ قَبْلَهُمْ قَوْمُ نُوحٍ فَكَذَّبُوا عَبْدَنَا وَقَالُوا مَجْنُونٌ وَازْدُجِرَ54.9

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৯। কায্যাবাত্ ক্বব্লাহুম্ ক্বওমু নূহিন্ ফাকায্যাবূ ‘আব্দানা- অক্ব-লূ মাজ্ব ্নূ নুওঁ অয্দুর্জ্বি ।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৯ তাদের পূর্বে নূহের কওমও অস্বীকার করেছিল। তারা আমার বান্দাকে অস্বীকার করেছিল এবং বলেছিল, ‘পাগল’। আর তাকে হুমকি দেয়া হয়েছিল।

فَدَعَا رَبَّهُ أَنِّي مَغْلُوبٌ فَانْتَصِرْ54.10

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১০। ফাদা‘আ রব্বাহূ য় আন্নী মাগ্লূবুন্ ফান্তার্ছি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১০ অতঃপর সে তার রবকে আহ্বান করল যে, ‘নিশ্চয় আমি পরাজিত, অতএব তুমিই প্রতিশোধ গ্রহণ কর’।

فَفَتَحْنَا أَبْوَابَ السَّمَاءِ بِمَاءٍ مُنْهَمِرٍ54.11

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১১। ফাফাতাহ্না য় আব্ওয়া-বাস্ সামা-য়ি বিমা-য়িম্ মুন্হার্মি ।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১১ ফলে আমি বষর্ণ শীল বারিধারার মাধ্যমে আসমানের দরজাসমূহ খুলে দিলাম।

وَفَجَّرْنَا الْأَرْضَ عُيُونًا فَالْتَقَى الْمَاءُ عَلَى أَمْرٍ قَدْ قُدِرَ54.12

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১২। অফাজ্বর্ জ্বানাল্ র্আদ্বোয়া উ’ইয়ূনান্ ফাল্তাক্বল্ মা-য়ু ‘আলা য় আম্রিন্ ক্বদ্ ক্ব ুর্দি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১২ আর ভূমিতে আমি ঝর্না উৎসারিত করলাম। ফলে সকল পানি মিলিত হল নির্ধারিত নির্দেশনা অনুসারে।

وَحَمَلْنَاهُ عَلَى ذَاتِ أَلْوَاحٍ وَدُسُرٍ54.13

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৩। অহামাল্না-হু ‘আলা- যা-তি আল্ওয়া-হিঁও অদুর্সু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৩ আর আমি তাকে (নূহকে) কাঠ ও পেরেক নির্মিত নৌযানে আরোহণ করালাম।

تَجْرِي بِأَعْيُنِنَا جَزَاءً لِمَنْ كَانَ كُفِرَ54.14

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৪। তাজ্ব রী বিআ’ইয়ুনিনা-জ্বাযা-য়াল্ লিমান্ কা-না কুর্ফি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৪ যা আমার চাক্ষুস তত্ত্বাবধানে চলত, তার জন্য পুরস্কারস্বরূপ, যাকে প্রত্যাখ্যান করা হয়েছিল।

وَلَقَدْ تَرَكْنَاهَا آيَةً فَهَلْ مِنْ مُدَّكِرٍ 54.15

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৫। অলাক্বত তারাক্না-হা য় আ-ইয়াতান্ ফাহাল্ মিম্ মুদ্দার্কি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৫ আর আমি তাকে নিদর্শন হিসেবে রেখেছি। অতএব কোন উপদেশ গ্রহণকারী আছে কি?

فَكَيْفَ كَانَ عَذَابِي وَنُذُرِ54.16

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৬। ফাকাইফা কা-না ‘আযা-বী অনুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৬ অতএব আমার আযাব ও ভয় প্রদর্শন কেমন ছিল?

وَلَقَدْ يَسَّرْنَا الْقُرْآنَ لِلذِّكْرِ فَهَلْ مِنْ مُدَّكِرٍ54.17

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৭। অলাক্বদ ইয়ার্স্সানাল্ কুরআ-না লিয্যিক্রি ফাহাল্ মিম্ মুদ্দার্কি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৭ আর আমি তো কুরআনকে সহজ করে দিয়েছি উপদেশ গ্রহণের জন্য। অতএব কোন উপদেশ গ্রহণকারী আছে কি?

كَذَّبَتْ عَادٌ فَكَيْفَ كَانَ عَذَابِي وَنُذُرِ54.18

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৮। কায্যাবাত্ ‘আ-দুন্ ফাকাইফা কা-না ‘আযা-বী অনুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৮ ‘আদ জাতি অস্বীকার করেছিল, অতএব আমার আযাব ও ভয় প্রদর্শন কিরূপ হয়েছিল?

إِنَّا أَرْسَلْنَا عَلَيْهِمْ رِيحًا صَرْصَرًا فِي يَوْمِ نَحْسٍ مُسْتَمِرٍّ54.19

আরবি উচ্চারণ
৫৪.১৯। ইন্না য় আরসালনা- ‘আলাইহিম্ রীহান্ ছোর্য়াছোয়ারন্ ফী ইয়াওমি নাহ্সিম্ মুস্তার্মি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.১৯ নিশ্চয় আমি তাদের ওপর পাঠিয়েছিলাম প্রচণ্ড শীতল ঝড়ো হাওয়া, অব্যাহত এক অমঙ্গল দিনে।

تَنْزِعُ النَّاسَ كَأَنَّهُمْ أَعْجَازُ نَخْلٍ مُنْقَعِرٍ54.20

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২০ তান্যি‘ঊন্না-সা কাআন্নাহুম্ ‘আজ্বা-যু নাখ্লিম্ মুন্ক্বাইর্’।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২০ তা মানুষকে উৎখাত করেছিল। যেন তারা উৎপাটিত খেজুরগাছের কাণ্ড।

فَكَيْفَ كَانَ عَذَابِي وَنُذُرِ54.21

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২১। ফাকাইফা কা-না ‘আযা-বী অনুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২১ অতএব আমার আযাব ও ভয় প্রদর্শন কিরূপ হয়েছিল?

وَلَقَدْ يَسَّرْنَا الْقُرْآنَ لِلذِّكْرِ فَهَلْ مِنْ مُدَّكِرٍ54.22

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২২। অলাক্বদ্ ইয়ার্স্সানাল্ কুরআ-না লিয্যিক্রি ফাহাল্ মিম্ মুদ্দার্কি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২২ আর আমি তো কুরআনকে সহজ করে দিয়েছি উপদেশ গ্রহণের জন্য। অতএব কোন উপদেশ গ্রহণকারী আছে কি?

كَذَّبَتْ ثَمُودُ بِالنُّذُرِ54.23

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৩। কায্যাবাত্ ছামূদু বিন্নুর্যু ।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৩ সামূদ জাতিও সতর্ককারীদেরকে মিথ্যাবাদী বলেছিল।

فَقَالُوا أَبَشَرًا مِنَّا وَاحِدًا نَتَّبِعُهُ إِنَّا إِذًا لَفِي ضَلَالٍ وَسُعُرٍ 54.24

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৪। ফাক্ব-লূ য় আবাশারাম্ মিন্না-ওয়া-হিদান্ নাত্তাবিউ’হূ য় ইন্না য় ইযাল্ লাফী দ্বোয়ালা-লিঁও অসু‘র্উ।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৪ অতঃপর তারা বলেছিল, ‘আমরা কি আমাদেরই মধ্য থেকে এক ব্যক্তির অনুসরণ করব? তাহলে নিশ্চয় আমরা পথভ্রষ্টতা ও উম্মত্ততার মধ্যে পড়ব’।

أَؤُلْقِيَ الذِّكْرُ عَلَيْهِ مِنْ بَيْنِنَا بَلْ هُوَ كَذَّابٌ أَشِرٌ54.25

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৫। আ উল্ক্বিয়ায্ যিক্রু ‘আলাইহি মিম্ বাইনিনা-বাল্ হুওয়া কায্যা-বুন্ আর্শি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৫ ‘আমাদের মধ্য থেকে কি তার ওপরই উপদেশবাণী পাঠানো হয়েছে ? বরং সে চরম মিথ্যাবাদী অহঙ্কারী’।

سَيَعْلَمُونَ غَدًا مَنِ الْكَذَّابُ الْأَشِرُ54.26

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৬। সাইয়া’লামূনা গদাম্ মানিল্ কায্যা-বুল্ আর্শি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৬ আগামী দিন তারা জানতে পারবে, কে চরম মিথ্যাবাদী, অহঙ্কারী।

إِنَّا مُرْسِلُو النَّاقَةِ فِتْنَةً لَهُمْ فَارْتَقِبْهُمْ وَاصْطَبِرْ54.27

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৭। ইন্না- র্মুসিলুন্না-ক্বতি ফিত্নাতাল্ লাহুম্ র্ফাতাকিব্ হুম্ অছত্বোয়ার্বি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৭ নিশ্চয় আমি তাদের জন্য পরীক্ষাস্বরূপ উষ্ট্রী পাঠাচ্ছি। অতএব তুমি তাদের ব্যাপারে অপেক্ষা কর এবং ধৈযর্ধারণ কর।

وَنَبِّئْهُمْ أَنَّ الْمَاءَ قِسْمَةٌ بَيْنَهُمْ كُلُّ شِرْبٍ مُحْتَضَرٌ54.28

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৮। অনাব্বিহুম্ আন্নাল্ মা-য়া ক্বিস্মাতুম্ বাইনাহুম্ কুল্লু র্শিবিম্ মুহ্তাদ্বোর্য়া।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৮ আর তাদেরকে জানিয়ে দাও যে, তাদের মধ্যে পানি বণ্টন সুনির্দিষ্ট। প্রত্যেকেই (পালাূমে) পানির অংশে উপস্থিত হবে।

فَنَادَوْا صَاحِبَهُمْ فَتَعَاطَى فَعَقَرَ54.29

আরবি উচ্চারণ
৫৪.২৯। ফানা-দাও ছোয়া-হিবাহুম্ ফাতা‘আত্বোয়া- ফা‘আর্ক্বা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.২৯ অতঃপর তারা তাদের সাথীকে ডেকে আনল। তখন সে উষ্ট্রীকে ধরল, তারপর হত্যা করল।

فَكَيْفَ كَانَ عَذَابِي وَنُذُرِ54.30

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩০। ফাকাইফা কা-না ‘আযা-বী অনুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩০ অতএব আমার আযাব ও ভয় প্রদর্শন কিরূপ হয়েছিল?

إِنَّا أَرْسَلْنَا عَلَيْهِمْ صَيْحَةً وَاحِدَةً فَكَانُوا كَهَشِيمِ الْمُحْتَظِرِ54.31

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩১। ইন্না য় র্আসাল্না-‘আলাইহিম্ ছোয়াইহাতাঁও ওয়া-হিদাতান্ ফাকা-নূ কাহাশীমিল্ মুহতার্জি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩১ নিশ্চয় আমি তাদের কাছে পাঠিয়েছিলাম এক বিকট আওয়াজ, ফলে তারা খোয়াড় প্রস্তুতকারীর খণ্ডিত শুষ্ক খড়ের মত হয়ে গেল।

وَلَقَدْ يَسَّرْنَا الْقُرْآنَ لِلذِّكْرِ فَهَلْ مِنْ مُدَّكِرٍ 54.32

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩২। অলাক্বদ্ ইয়ার্স্সানাল্ কুরআ-না লিয্যিক্রি ফাহাল্ মিম্ মুদ্দার্কি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩২ আর আমি তো কুরআনকে সহজ করে দিয়েছি উপদেশ গ্রহণের জন্য। অতএব কোন উপদেশ গ্রহণকারী আছে কি?

كَذَّبَتْ قَوْمُ لُوطٍ بِالنُّذُرِ54.33

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৩। কায্যাবাত্ ক্বওমু লূত্বিম্ বিন্নুর্যু ।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৩ লূতের কওম সতর্ককারীদেরকে মিথ্যাবাদী বলেছিল।

إِنَّا أَرْسَلْنَا عَلَيْهِمْ حَاصِبًا إِلَّا آلَ لُوطٍ نَجَّيْنَاهُمْ بِسَحَرٍ54.34

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৪। ইন্না য় র্আসাল্না- ‘আলাইহিম্ হা-ছিবান্ ইল্লা য় আ-লা লূত্ব ;নাজ্জ্বাইনা-হুম্ বিসার্হা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৪ নিশ্চয় আমি তাদের উপর কংকর-ঝড় পাঠিয়েছিলাম, তবে লূত পরিবারের উপর নয়। আমি তাদেরকে শেষ রাতে নাজাত দিয়েছিলাম,

نِعْمَةً مِنْ عِنْدِنَا كَذَلِكَ نَجْزِي مَنْ شَكَرَ54.35

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৫। নি’মাতাম্ মিন ই’ন্দিনা-; কাযা-লিকা নাজ্ব যী; মান শার্কা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৫ আমার কাছ থেকে অনগ্রহস্বরূপ। এভাবেই আমি তাকে প্রতিদান দেই, যে কৃতজ্ঞ হয়।

وَلَقَدْ أَنْذَرَهُمْ بَطْشَتَنَا فَتَمَارَوْا بِالنُّذُرِ54.36

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৬। অলাক্বদ্ আন্যারাহুম্ বাত্ব শাতানা- ফাতামা-রও বিন্নুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৬ আর লূত তো তাদেরকে আমার কঠিন পাকড়াও সম্পকের্ সাবধান করেছিল, তারপরও তারা সাবধান বাণী সম্পকের্ সন্দেহ পোষণ করেছিল।

وَلَقَدْ رَاوَدُوهُ عَنْ ضَيْفِهِ فَطَمَسْنَا أَعْيُنَهُمْ فَذُوقُوا عَذَابِي وَنُذُرِ54.37

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৭। অলাক্বদ্ রা-ওয়াদূহু ‘আন্ দ্বোয়াইফিহী ফাত্বোয়ামাস্না য় আ’ইয়ুনাহুম্ ফাযূকু ‘আযা-বী অনুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৭ আর তারা তার কাছে তার মেহমানদেরকে (অসদুদ্দেশ্যে) দাবী করল। তখন আমি তাদেও চোখগুলোকে অন্ধ করে দিলাম। (আর বললাম) আমার আযাব ও সাবধানবাণীর পরিণাম আস্বাদন কর।

وَلَقَدْ صَبَّحَهُمْ بُكْرَةً عَذَابٌ مُسْتَقِرٌّ54.38

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৮। অলাক্বদ্ ছোয়াব্বাহাহুম্ বুক্রাতান্ ‘আযা-বুম্ মুস্তার্ক্বি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৮ আর সকাল বেলা তাদের উপর অবিরত আযাব নেমে আসল।

فَذُوقُوا عَذَابِي وَنُذُرِ54.39

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৩৯। ফাযূকু ‘আযা-বী অনুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৩৯ ‘আর আমার আযাব ও সাবধানবাণীর পরিণাম আস্বাদন কর’।

وَلَقَدْ يَسَّرْنَا الْقُرْآنَ لِلذِّكْرِ فَهَلْ مِنْ مُدَّكِرٍ54.40

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪০। অলাক্বদ্ ইয়ার্স্সানাল্ কুরআ-না লিয্যিক্রি ফাহাল্ মিম্ মুদ্দার্কি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪০ আর আমি তো কুরআনকে সহজ করে দিয়েছি, উপদেশ গ্রহণের জন্য। অতএব কোন উপদেশ গ্রহণকারী আছে কি?

وَلَقَدْ جَاءَ آلَ فِرْعَوْنَ النُّذُرُ 54.41

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪১। অলাক্বদ্ জ্বা-য়া আ-লা র্ফি‘আউনান্ নুর্যু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪১ ফির‘আউন গোষ্ঠীর কাছেও তো সাবধানবাণী এসেছিল।

كَذَّبُوا بِآيَاتِنَا كُلِّهَا فَأَخَذْنَاهُمْ أَخْذَ عَزِيزٍ مُقْتَدِرٍ54.42

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪২। কায্যাবূ বিআ-ইয়া- তিনা-কুল্লিহা-ফাআখায্না-হুম্ আখ্যা ‘আযীযিম্ মুক্ব্তার্দি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪২ তারা আমার সকল নিদর্শনকে অস্বীকার করল, অতএব আমি মহাপরাক্রমশালী, সর্বশক্তিমানের মতই তাদেরকে পাকড়াও করলাম।

أَكُفَّارُكُمْ خَيْرٌ مِنْ أُولَئِكُمْ أَمْ لَكُمْ بَرَاءَةٌ فِي الزُّبُرِ54.43

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৩। আকুফ্ফা-রুকুম্ খইরুম্ মিন্ উলা-য়িকুম্ আম্ লাকুম্ বার-য়াতুন্ ফিয্যুর্বু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৩ তোমাদের (মক্কার) কাফিররা কি তাদের চেয়ে ভাল? না কি তোমাদের জন্য মুক্তির কোন ঘোষণা রয়েছে (আসমানী) কিতাবসমূহের মধ্যে?

أَمْ يَقُولُونَ نَحْنُ جَمِيعٌ مُنْتَصِرٌ54.44

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৪। আম্ ইয়াকুলূনা নাহ্নু জ্বামীউ’ম্ মুন্তার্ছি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৪ না কি তারা বলে, ‘আমরা সংঘবদ্ধ বিজয়ী দল’?

سَيُهْزَمُ الْجَمْعُ وَيُوَلُّونَ الدُّبُرَ54.45

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৫। সাইয়ুহ্ যামুল্ জ্বাম্উ’ অ ইয়ুওয়াল্লূ নাদ্ দুর্বু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৫ সংঘবদ্ধ দলটি শীঘ্রই পরাজিত হবে এবং পিঠ দেখিয়ে পালাবে।

بَلِ السَّاعَةُ مَوْعِدُهُمْ وَالسَّاعَةُ أَدْهَى وَأَمَرُّ54.46

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৬। বালিস্ সা- ‘আতু মাও ই’দুহুম্ অস্ সা-‘আতু আদ্হা-ওয়া আর্মা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৬ বরং কিয়ামত তাদের প্রতিশ্র“ত সময়। আর কিয়ামত অতি ভয়ঙ্কর ও তিক্ততর।

إِنَّ الْمُجْرِمِينَ فِي ضَلَالٍ وَسُعُرٍ54.47

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৭। ইন্নাল্ মুজ্ব রিমীনা ফী দ্বোয়ালা-লিঁও অসুউর্’।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৭ নিশ্চয় অপরাধীরা রয়েছে পথভ্রষ্টতা ও (পরকালে) প্রজ্জ্বলিত আগুনে।

يَوْمَ يُسْحَبُونَ فِي النَّارِ عَلَى وُجُوهِهِمْ ذُوقُوا مَسَّ سَقَرَ54.48

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৮। ইয়াওমা ইয়ুস্হাবূনা ফিন্না-রি ‘আলা-উজুহিহিম্; যূকু মাস্সা সার্ক্ব।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৮ সেদিন তাদেরকে উপুড় করে টেনে হিঁচড়ে জাহানড়বামে নেয়া হবে। (বলা হবে) জাহানড়বামের ছোঁয়া আস্বাদন কর।

إِنَّا كُلَّ شَيْءٍ خَلَقْنَاهُ بِقَدَرٍ54.49

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৪৯। ইন্না-কুল্লা শাইয়িন্ খলাকনা-হু বিক্বর্দা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৪৯ নিশ্চয় আমি সব কিছু সৃষ্টি করেছি নির্ধারিত পরিমাণ অনুযায়ী।

وَمَا أَمْرُنَا إِلَّا وَاحِدَةٌ كَلَمْحٍ بِالْبَصَرِ 54.50

আরবি উচ্চারণ
৫৪. ৫০। অমায় আম্রুনা য় ইল্লা-ওয়া-হিদাতুন্ কালাম্হিম্ বিল্বাছোর্য়া।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫০ আর আমার আদেশ তো কেবল একটি কথা, চোখের পলকের মত।

وَلَقَدْ أَهْلَكْنَا أَشْيَاعَكُمْ فَهَلْ مِنْ مُدَّكِرٍ54.51

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৫১। অলাক্বদ্ আহ্লাক্না য় আশ্ইয়া- ‘আকুম্ ফাহাল্ মিম্ মুদ্দার্কি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫১ আর আমি তো তোমাদের মত অনেককে ধ্বংস করে দিয়েছি, অতএব কোন উপদেশ গ্রহণকারী আছে কি?

وَكُلُّ شَيْءٍ فَعَلُوهُ فِي الزُّبُرِ54.52

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৫২। অ কুল্লু শাইয়িন্ ফা‘আলূহু ফিয্ যুর্বু।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫২ আর তারা যা করেছে, সব কিছুই ‘আমলনামায়’ রয়েছে।

وَكُلُّ صَغِيرٍ وَكَبِيرٍ مُسْتَطَرٌ54.53

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৫৩। অকুল্লু ছোয়াগীরিঁও অকাবীরিম্ মুস্তাত্বোর্য়া।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫৩ আর ছোট বড় সব কিছুই লিখিত আছে।

إِنَّ الْمُتَّقِينَ فِي جَنَّاتٍ وَنَهَرٍ54.54

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৫৪। ইন্নাল্ মুত্তাক্বীনা ফী জ্বান্না- তিঁও অনার্হা।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫৪ নিশ্চয় মুত্তাকীরা থাকবে বাগ-বাগিচা ও ঝর্ণাধারার মধ্যে।

فِي مَقْعَدِ صِدْقٍ عِنْدَ مَلِيكٍ مُقْتَدِرٍ 54.55

আরবি উচ্চারণ
৫৪.৫৫। ফী মাক‘আদি ছিদ্ক্বিন্ ই’নদা মালীকিম্ মুকতার্দি।

বাংলা অনুবাদ
৫৪.৫৫ যথাযোগ্য আসনে, সর্বশক্তিমান মহাঅধিপতির নিকটে।

About Abdul Latif Sheikh

Check Also

idf image

সুরা আল ইমরান আয়াত ১০২-১০৫ এর তাফসির

یٰۤاَیُّهَا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوا اتَّقُوا اللّٰهَ حَقَّ تُقٰتِهٖ وَ لَا تَمُوۡتُنَّ اِلَّا وَ اَنۡتُمۡ مُّسۡلِمُوۡنَ  وَ …

সুরা ইখলাস এর ফযিলত

সুরা আন আনফাল

সুরা আন আনফাল নামের অর্থঃ যুদ্ধ লব্ধ সম্পদ শ্রেনীঃ মাদানী সুরা ক্রমঃ ৮ আয়াত সংখ্যাঃ …

সুরা ইখলাস এর ফযিলত

সূরা আত-তাওবাহ্‌

সূরা আত-তাওবাহ্‌ শ্রেণীঃ মাদানীনামের অর্থঃ অনুশোচনাঅন্য নামঃ আল-বারাহ্ (শাস্তি থেকে অব্যাহতি) সূরার ক্রমঃ ৯আয়াতের সংখ্যাঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.