Monday , February 26 2024
সর্বশেষ

সুরা আবাসা

সুরা আবাসা

শ্রেণীঃ মাক্কী সূরা
নামের অর্থঃ তিনি ভ্রুকুটি করলেন

সূরার ক্রমঃ ৮০
আয়াতের সংখ্যাঃ ৪২
পারার ক্রমঃ ৩০
রুকুর সংখ্যাঃ নেই
সিজদাহ্‌র সংখ্যাঃ নেই
শব্দের সংখ্যাঃ ১৩৩
অক্ষরের সংখ্যাঃ ৫৩৮

← পূর্ববর্তী সূরা সূরা আন-নাযিয়াত
পরবর্তী সূরা → সূরা আত-তাকভীর

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَنِ الرَّحِيمِ

বিসমিল্লা-হির রাহমা-নির রাহিম


Previous | Surah Abasa | next

عَبَسَ وَتَوَلَّى (١)
1. আবাসা অতাওয়াল্লা~।
তিনি ভ্রূকুঞ্চিত করলেন এবং মুখ ফিরিয়ে নিলেন।


أَنْ جَاءَهُ الأعْمَى (٢)
2. আন জ্বা~য়াহুল আ’মা-।
কারণ, তাঁর কাছে এক অন্ধ আগমন করল।


وَمَا يُدْرِيكَ لَعَلَّهُ يَزَّكَّى (٣)
3. অমা-ইয়ুদরীকা লা’আল্লাহু ইয়াযযাক্কা~।
আপনি কি জানেন, সে হয়তো পরিশুদ্ধ হত,


أَوْ يَذَّكَّرُ فَتَنْفَعَهُ الذِّكْرَى (٤)
4. আও ইযযাক্কারু ফাতানফা’আহুয যিকর-।
অথবা উপদেশ গ্রহণ করতো এবং উপদেশ তার উপকার হত।


أَمَّا مَنِ اسْتَغْنَى (٥)
5. আম্মা-মানিস তাগনা-।
পরন্তু যে বেপরোয়া,


فَأَنْتَ لَهُ تَصَدَّى (٦)
6. ফাআনতা লাহূ তাছোয়াদ্দা-।
আপনি তার চিন্তায় মশগুল।


وَمَا عَلَيْكَ أَلا يَزَّكَّى (٧)
7. অমা- ‘আলাইকা আল্লা-ইযযাক্কা-।
সে শুদ্ধ না হলে আপনার কোন দোষ নেই।


وَأَمَّا مَنْ جَاءَكَ يَسْعَى (٨)
8. অআম্মা-মান জ্বা– য়াকা ইয়াস‘আ-।
যে আপনার কাছে দৌড়ে আসলো


وَهُوَ يَخْشَى (٩)
9. অহুওয়া ইয়াখশা-।
এমতাবস্থায় যে, সে ভয় করে,


فَأَنْتَ عَنْهُ تَلَهَّى (١٠)
10. ফাআনতা আনহু তালাহহা-।
আপনি তাকে অবজ্ঞা করলেন।


كَلا إِنَّهَا تَذْكِرَةٌ (١١)
11. কাল্লা~ ইন্নাহা-তাযকিরহ।
কখনও এরূপ করবেন না, এটা উপদেশবানী।


فَمَنْ شَاءَ ذَكَرَهُ (١٢)
12. ফামান শা–য়া যাকারহ।
অতএব, যে ইচ্ছা করবে, সে একে গ্রহণ করবে।


فِي صُحُفٍ مُكَرَّمَةٍ (١٣)
13. ফী ছুহুফিম মুকাররমাতিম।
এটা লিখিত আছে সম্মানিত,


مَرْفُوعَةٍ مُطَهَّرَةٍ (١٤)
14. মারফূ ‘আতিম মুত্বোয়াহ্‌হারতিম।
উচ্চ পবিত্র পত্রসমূহে,


بِأَيْدِي سَفَرَةٍ (١٥)
15. বিআইদী সাফারতিন্‌
লিপিকারের হস্তে,


كِرَامٍ بَرَرَةٍ (١٦)
16. কির-মিম বাররহ-
যারা মহৎ, পূত চরিত্র।


قُتِلَ الإنْسَانُ مَا أَكْفَرَهُ (١٧)
17. ক্বু তিলাল ইনসা-নু মা~ আকফারহ।
মানুষ ধ্বংস হোক, সে কত অকৃতজ্ঞ!


مِنْ أَيِّ شَيْءٍ خَلَقَهُ (١٨)
18. মিন আইয়্যি শাইয়িন খলাক্বহ।
তিনি তাকে কি বস্তু থেকে সৃষ্টি করেছেন?


مِنْ نُطْفَةٍ خَلَقَهُ فَقَدَّرَهُ (١٩)
19. মিন নুত্বফাহ; খলাক্বহূ ফাক্বদ্দারহূ।
শুক্র থেকে তাকে সৃষ্টি করেছেন, অতঃপর তাকে সুপরিমিত করেছেন।


ثُمَّ السَّبِيلَ يَسَّرَهُ (٢٠)
20. ছুম্মাস সাবীলা ইয়াসসারহূ।
অতঃপর তার পথ সহজ করেছেন,


ثُمَّ أَمَاتَهُ فَأَقْبَرَهُ (٢١)
21. ছুম্মা আমা-তাহূ ফাইক্ব বারহূ।
অতঃপর তার মৃত্যু ঘটান ও কবরস্থ করেন তাকে।


ثُمَّ إِذَا شَاءَ أَنْشَرَهُ (٢٢)
22. ছুম্মা ইযা-শা–য়া আনশারহ।
এরপর যখন ইচ্ছা করবেন তখন তাকে পুনরুজ্জীবিত করবেন।


كَلا لَمَّا يَقْضِ مَا أَمَرَهُ (٢٣)
23. কাল্লা-লাম্মা-ইয়াক্ব দ্বি মা~ আমারহ।
সে কখনও কৃতজ্ঞ হয়নি, তিনি তাকে যা আদেশ করেছেন, সে তা পূর্ণ করেনি।


فَلْيَنْظُرِ الإنْسَانُ إِلَى طَعَامِهِ (٢٤)
24. ফালইয়ানজুরিল ইনসা-নু ইলা-ত্বোয়া‘আ-মিহী~।
মানুষ তার খাদ্যের প্রতি লক্ষ্য করুক,


أَنَّا صَبَبْنَا الْمَاءَ صَبًّا (٢٥)
25. আন্না- ছোয়াবাবনাল মা–য়া ছোয়াববান্‌।
আমি আশ্চর্য উপায়ে পানি বর্ষণ করেছি,


ثُمَّ شَقَقْنَا الأرْضَ شَقًّا (٢٦)
26. ছুম্মা শাক্বক্ব নাল আরদ্বোয়া শাক্ব ক্বান।
এরপর আমি ভূমিকে বিদীর্ণ করেছি,


فَأَنْبَتْنَا فِيهَا حَبًّا (٢٧)
27. ফাআমবাতনা-ফীহা-হাব্বাবাঁও।
অতঃপর তাতে উৎপন্ন করেছি শস্য,


وَعِنَبًا وَقَضْبًا (٢٨)
28. অ ‘ইনাবাঁও অক্বদ্ববাঁও।
আঙ্গুর, শাক-সব্জি,


وَزَيْتُونًا وَنَخْلا (٢٩)
29. অ যাইতূ নাঁও অনাখলাঁও।
যয়তুন, খর্জূর,


وَحَدَائِقَ غُلْبًا (٣٠)
30. অহাদা–য়িক্বা গুলবাঁও।
ঘন উদ্যান,


وَفَاكِهَةً وَأَبًّا (٣١)
31. অফা-কিহাতাঁও অআব্বাম।
ফল এবং ঘাস

مَتَاعًا لَكُمْ وَلأنْعَامِكُمْ (٣٢)
32. মাতা- ‘আল্লাকুম অলিআন’আ-মিকুম।
তোমাদেরও তোমাদের চতুস্পদ জন্তুদের উপাকারার্থে।

فَإِذَا جَاءَتِ الصَّاخَّةُ (٣٣)
33. ফাইযা-জ্বা–য়াতিছ ছোয়া–খখাহ্‌।
অতঃপর যেদিন কর্ণবিদারক নাদ আসবে,

يَوْمَ يَفِرُّ الْمَرْءُ مِنْ أَخِيهِ (٣٤)
34. ইয়াওমা ইয়াফিররুল মারয়ু মিন আখীহি।
সেদিন পলায়ন করবে মানুষ তার ভ্রাতার কাছ থেকে,

وَأُمِّهِ وَأَبِيهِ (٣٥)
35. অউম্মিহী অআবীহি।
তার মাতা, তার পিতা,

وَصَاحِبَتِهِ وَبَنِيهِ (٣٦)
36. অছোয়া-হিবাতিহী অবানীহ।
তার পত্নী ও তার সন্তানদের কাছ থেকে।


لِكُلِّ امْرِئٍ مِنْهُمْ يَوْمَئِذٍ شَأْنٌ يُغْنِيهِ (٣٧)
37. লিকুল্লিমরিয়িম মিনহুম ইয়াওমায়িযিন শা’নুঁই ইয়ুগনীহ।
সেদিন প্রত্যেকেরই নিজের এক চিন্তা থাকবে, যা তাকে ব্যতিব্যস্ত করে রাখবে।

وُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ مُسْفِرَةٌ (٣٨)
38. উজ্বূ হুঁই ইয়াওমায়িযিম মুসফিরতুন।
অনেক মুখমন্ডল সেদিন হবে উজ্জ্বল,

ضَاحِكَةٌ مُسْتَبْشِرَةٌ (٣٩)
39. দ্বোয়া-হিকাতুম মুসতাবশিরহ্।
সহাস্য ও প্রফুল্ল।

وَوُجُوهٌ يَوْمَئِذٍ عَلَيْهَا غَبَرَةٌ (٤٠)
40. অ উজ্বূ হুঁই ইয়াওমায়িযিন ‘আলাইহা- গাবারতুন।
এবং অনেক মুখমন্ডল সেদিন হবে ধুলি ধূসরিত।

تَرْهَقُهَا قَتَرَةٌ (٤١)
41. তারহাক্বু হা-ক্বাতারহ্‌।
তাদেরকে কালিমা আচ্ছন্ন করে রাখবে।

أُولَئِكَ هُمُ الْكَفَرَةُ الْفَجَرَةُ (٤٢)
42. উলা–য়িকা হুমুল কাফারতুল ফাজ্বারহ্‌।
তারাই কাফের পাপিষ্ঠের দল।

About Abdul Latif Sheikh

Check Also

idf image

সুরা আল ইমরান আয়াত ১০২-১০৫ এর তাফসির

یٰۤاَیُّهَا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوا اتَّقُوا اللّٰهَ حَقَّ تُقٰتِهٖ وَ لَا تَمُوۡتُنَّ اِلَّا وَ اَنۡتُمۡ مُّسۡلِمُوۡنَ  وَ …

সুরা ইখলাস এর ফযিলত

সুরা আন আনফাল

সুরা আন আনফাল নামের অর্থঃ যুদ্ধ লব্ধ সম্পদ শ্রেনীঃ মাদানী সুরা ক্রমঃ ৮ আয়াত সংখ্যাঃ …

সুরা ইখলাস এর ফযিলত

সূরা আত-তাওবাহ্‌

সূরা আত-তাওবাহ্‌ শ্রেণীঃ মাদানীনামের অর্থঃ অনুশোচনাঅন্য নামঃ আল-বারাহ্ (শাস্তি থেকে অব্যাহতি) সূরার ক্রমঃ ৯আয়াতের সংখ্যাঃ …

Leave a Reply

Your email address will not be published.